X

ফ্যাক্ট চেকঃ কানপুরে পুলিশকর্মীদের উপর হওয়া হামলার পুরোনো ছবিকে বাংলার বলে ভাইরাল করা হচ্ছে

  • By Vishvas News
  • Updated: নভেম্বর 10, 2020


নিউ দিল্লী (বিশ্বাস নিউজ)। ফেসবুকে একটা ছবি ভাইরাল হচ্ছে। এতে একজন যুবককে এক পুলিশকে নির্মমভাবে আক্রমণ করতে দেখা যায়। কিছু ইউজার এটাকে পশ্চিমবঙ্গের ঘটনা বলে উল্লেখ করে ওই যুবককে বিজেপি এর লোক হিসাবে উল্লেখ করছেন।

বিশ্বাস নিউজ ভাইরাল পোস্টটির তদন্ত করেছে। আমরা জানতে পেরেছি যে এই ছবিটির সাথে পশ্চিমবঙ্গের কোন সম্পর্ক নেই। ভাইরাল ছবিটি ইউপি এর কানপুরের। 2017 সালে একটি হাসপাতালে একটি নাবালিকাকে ধর্ষণ করার পরে রাস্তায় উত্তেজিত জনতা রাস্তায় নেমে এসেছিলেন। ছবিটি সেই সময়কার। এই ঘটনার অন্য একটি ছবি ভুয়ো দাবি নিয়ে ভাইরাল হয়েছে আগেই। আপনি এখানে এটা পড়তে পারেন।

কেন ভাইরাল হয়েছিল

ফেসবুক ইউজার আহির মান 11 ই অক্টোবর একটি ছবি আপলোড করে  দাবি করেছেন: ‘বাংলায় বিজেপিকে গুন্ডা এক প্রবীণ পুলিশ সদস্য সহায়তা করেছেন…

আছে

ভাইরাল পোস্টের আর্কাইভ ভার্সান দেখুন।

তদন্ত

বিশ্বাস নিউজ সবার আগে ভাইরাল ছবিটি ভালোভাবে দেখেছে। এতে একজন তরুনকে একজন পুলিশকর্মীর ঘাড় ধরে মাটিতে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করতে দেখা গেছে। এই ছবিটিকে আমরা গুগল রিভার্স ইমেজ টুলে আপলোড করে সার্চ করেছি। 

আমরা এই ছবিটি দ্য সান নামে একটি ওয়েবসাইটে পেয়েছি। এই ছবিটি নিয়ে এই তথ্য দেওয়া হয়েছে যে এটি কানপুর ইউপি এর ঘটনা। 21 শে জুন 2017 এ আপলোড করা খবরে বলা হয়েছে যে কানপুরের একটি হাসপাতালের আইসিইউ তে স্কুলের একজন ছাত্রীর সাথে দুর্ব্যবহারের পরে বিক্ষুব্ধ জনতা উত্তেজনা তৈরি করেছিল। ছবিটি ওই সময়কার।

তদন্ত চলাকালীন আমরা inextlive.com ওয়েবসাইটে একটি খবর পাই। জুন 17ই জুন, 2017-এ পাবলিশড খবরে বলা হয়েছিল যে পুলিশ শিথিলতার কারণে কানপুরের নিউ জাগৃতি হাসপাতালের আইসিইউতে হওয়া রেপের কারনে জনতার ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। জনতা বারার কাছে নতুন জাগৃতি হাসপাতালের কাছে পরিকল্পিতভাবে জড়ো হয়েছিল এবং তারপরে হাসপাতালে পাথর ছুঁড়েছিল। সময়ের সাথে সাথে জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেছিল। এতে যেসব পুলিশকর্মীরা জড়িত ছিলেন, তাদের উদ্দেশ্যেই ছিল কেবলমাত্র মামলাটি শান্ত করার। পুরো খবর পড়ুন

Inextliveএর ইউটিউব চ্যানেলে আমরা ঘটনাটির একটি ভিডিওও পেয়েছি। পুরো ঘটনাটি এই ভিডিওতে দেখা যাবে।

তদন্তের পরবর্তী পর্যায়ে, বিশ্বাস নিউজ কানপুর-ভিত্তিক আইনেক্ট লাইভ ওয়েবসাইটের সম্পাদক মায়ঙ্ক শুক্লের সাথে যোগাযোগ করেছিল। উনি ছবিটি দেখে বলেন যে ভাইরাল পোস্টটি ইউপি কানপুরের। 2017 সালে, কানপুরে জনতা ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছিল। এই ছবিটি সেই সময়ে তোলা হয়েছিল।

সবশেষে আমরা ভুয়ো পোস্ট করা ইউজারের খোঁজ করি। ফেসবুক ইউজার আহির মানের সোশ্যাল স্ক্যানিং এ আমরা জানতে পারি যে উনি নিউ দিল্লীর বাসিন্দা।

निष्कर्ष: বিশ্বাস নিউজের তদন্তে ভাইরাল পোস্ট ভুয়ো বলে প্রমাণিত হয়েছে। কানপুরের পুরোনো ছবিকে কিছু লোক পশ্চিমবঙ্গের বলে ভাইরাল করছে।

Know the truth! If you have any doubts about any information or a rumor, do let us know!

Knowing the truth is your right. If you feel any information is doubtful and it can impact the society or nation, send it to us by any of the sources mentioned below.

ট্যাগ

সম্পর্কিত আর্টিকেলস

Post saved! You can read it later