X

Fact Check: তোলাবাজির জন্য উত্তরপ্রদেশের বাদাউনে গো রক্ষা সংগ্রাম সমিতির মহন্তকে গ্রেফতারের ভিডিও বিভ্রান্তিকর দাবির সঙ্গে ভাইরাল

উপসংহার: উত্তরপ্রদেশের বদাউন জেলার উঘাইটি থানা এলাকায় গরু চরানোর নামে তোলাবাজির ঘটনায় গোরক্ষা সংগ্রাম সমিতির জেলা সভাপতি সহ তিনজনের বিরুদ্ধে মোকাদ্দমার ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে রাজস্থানের বলে।

  • By Vishvas News
  • Updated: সেপ্টেম্বর 30, 2021

নিউ দিলী (বিশ্বাস নিউজ)। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে একজন পুলিশকে সাধুর পোশাক পরা একজন ব্যক্তির সাথে দেখা যায়, যার হাতে হাতকড়া পরা। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি রাজস্থানের বলে দাবি করে বলা হয় যে, গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির নাম মহন্ত গরীবদাস এবং গরু পাচারকারীদের বিরোধিতার জন্য রাজ্য পুলিশ তাকে মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠায়।

বিশ্বাস নিউজের তদন্তে এই দাবী মিথ্যা এবং বিভ্রান্তিকর বলে প্রমাণিত হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির নাম মহন্ত গরীবদাস, কিন্তু তার সাথে আরও তিনজনকে গরু চুরির মিথ্যা অভিযোগ করে তোলাবাজির মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ঘটনা রাজস্থানের নয়, উত্তরপ্রদেশের বাদাউনের, যেখানে এই লোকগুলোকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

ভাইরাল হওয়া পোস্টে কি আছে?

ফেসবুক ইউজার ‘Haripal Singh Nauhwar’ ভাইরাল ভিডিওটি (আর্কাইভ লিঙ্ক) শেয়ার করে লিখেছেন যে, “রাজস্থানে, একজন সাধু গরু পাচারকারীদের বিরুদ্ধে প্রচার করছিলেন, গরু পাচারকারীরা তার বিরুদ্ধে তোলাবাজির একটি মামলা করেছিল, এই পর্যন্ত এটি ঠিক ছিল, এটি তদন্তের বিষয় যে কে সঠিক এবং কে ভুল, কিন্তু 80 বছর- বৃদ্ধ হিন্দু সাধুকে এইভাবে হাতকড়া পরানো কি সঠিক জিনিস ??? এই পুলিশকর্মী কোন মোলবী সাহেবের হাতে হাতকড়া পরিয়ে প্রেপ্তার করার সাহস হবে কি ?? আসলে যখন অশোক গেহলট মুখ্যমন্ত্রী তখন হিন্দুদের এভাবে অপমান করা হবে। “

সোশ্যাল মিডিয়ায় আরও বেশ কয়েকজন ইউজার এক সমান এবং অনুরূপ দাবির সাথে ভিডিওটি শেয়ার করেছেন।

তদন্ত

অনুসন্ধানে, আমরা এই ভিডিওটি অন্যান্য অনেক  ইউজারের প্রোফাইলে পেয়েছি। এই ভিডিওটি শেয়ার করার সময় একজন ইউজার এটিকে পুলিশের কাজ বলে বর্ণনা করেছেন। ভিডিওটি শেয়ার করে তিনি লিখেছেন যে গ্রেফতার  হওয়া ব্যক্তির নাম মহন্ত বাবা গরীবদাস।

এই কীওয়ার্ডগুলি দিয়ে সার্চ করার সময়, আমরা 1 সেপ্টেম্বর, 2021 -এ livehindustan.com- এর ওয়েবসাইটে ‘গো রক্ষার সংগ্রাম সমিতির জেলা সভাপতি সহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা’ হেডলাইন দেওয়া একটি সংবাদ পাই।

রিপোর্টে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, উত্তরপ্রদেশের বাদাউন জেলার ‘ইখখেদা গ্রামের কৃষি এলাকায় গরু পাচারকারী রাজস্থানী মেষপালকদের থামাতে গো রক্ষা সংগ্রাম সমিতির জেলা সভাপতিসহ তিনজনকে দাম দিতে হয়েছে। গ্রামের প্রধানসহ এক ডজন লোকের সম্মিলিত দাবীর ভিত্তিতে, পুলিশ তিনজনের বিরুদ্ধে অবৈধ তোলাবাজির একটি মামলা দায়ের করেছে। খন্ডওয়া গ্রামের বাসিন্দা গরীবদাস এবং গোপালপুরের বাসিন্দা ওম প্রকাশ এবং সত্যপালের উপর, রাজস্থানের ইখখেদার বাসিন্দা প্রধান রমেশ ধনগর সত্যবীর রাকেশ কুমার জয়দেব রামেশ্বর সূর্য প্রকাশ এবং মদন পালের দায়ের করা মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে যে, সোমবার রাতে প্রায় নটার সময় রাজস্থানের মেষপালকেরা গরু ও গাধা নিয়ে কৃষি এলাকা দিয়ে যাচ্ছিল। তখনই হঠাৎ বাবা গরীবদাস ওম প্রকাশ এবং সত্যপাল ঘটনাস্থলে আসেন।’

রিপোর্ট অনুযায়ী, ‘এই তিনজন এলাকা থেকে গরু সরানোর নামে রাজস্থানী রাখালদের কাছ থেকে পাঁচ হাজার টাকা দাবি করেছিল। টাকা না পাওয়ার পর, ঘটনাস্থল থেকে থানায় 112 তে ডায়াল পুলিশ টিমকেও ডাকা হয়েছিল। রাতে পুলিশ কোনোভাবে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়। সকালে গ্রামের প্রধানসহ এক ডজন লোক থানায় পৌঁছে পুলিশের কাছে অভিযোগ করে মামলা দায়েরের দাবি জানায়।’

প্রাসঙ্গিক তথ্য নিশ্চিত করার জন্য আমরা আবার একটি সংবাদ সার্চ করেছি। ১ লা সেপ্টেম্বর দৈনিক জাগরণের বদাউন সংস্করণে প্রকাশিত সংবাদে আমরা এই ঘটনা সম্পর্কে জানতে পেরেছি।

রিপোর্ট অনুযায়ী, রাজস্থানের ভবঘুরেরা সোমবার রাত নয়টায় ইখখেদা গ্রামের কাছে এক ডজনেরও বেশি গরু নিয়ে অবস্থান করছিল। এর মধ্যে, খান্দওয়া গ্রামের মহন্ত বাবা গরীবদাস, সত্যপাল এবং ওমপ্রকাশ তাদের ঘিরে ধরেন। গরু চুরির অভিযোগে, গোসেবার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের ডেকে পুলিশি ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছিল। এ সময় আশপাশের লোকজন গোলমালের কারণে সেখানে জড়ো হয়। বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পেরে, ইনখখেদা গ্রামের গ্রামপ্রধান রমেশান ধনগর ঘটনাস্থলে পৌঁছান। যখন তিনি ভবঘুরেদের কথা শুনলেন, তখন জানা গেল যে মহন্তসহ তিনজন তাদের কাছ থেকে পাঁচ হাজার টাকা তোলাবাজি আদায়ের জন্য গরু চুরির মিথ্যা অভিযোগ করছে। পুলিশের তদন্তে ভবঘুরেদের অভিযোগ  সত্য বলে প্রমাণিত হয়। গ্রাম প্রধানের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ মহন্ত সহ তিনজনের বিরুদ্ধে তোলাবাজির মামলা দায়ের করে।’

আমাদের তদন্ত থেকে এটা স্পষ্ট যে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি উত্তরপ্রদেশের বাদাউনের ঘটনার সাথে সম্পর্কিত নয়, বরং রাজস্থান থেকে এবং এই ক্ষেত্রে পুলিশ তোলাবাজির ঘটনায় মহন্তসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। এই খবর নিশ্চিত করার জন্য, বিশ্বাস নিউজ উঘাটি থানার পুলিশ অফিসার বীরেন্দ্র সিং রানার সাথে যোগাযোগ করেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে তিনি বলেন, মহামন্তসহ তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রাম প্রধান এবং অন্যদের অভিযোগের ভিত্তিতে তোলাবাজির মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আমাদের সহকর্মী দৈনিক জাগরনের বাদাউনের ব্যুরো চিফ কমলেশ শর্মাও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছিলেন যে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি এই ঘটনার সাথে সম্পর্কিত।

ইউজার, যিনি ভাইরাল ভিডিওটি বিভ্রান্তিকর দাবির সাথে শেয়ার করেছেন, তিনি তার প্রোফাইলে নিজেকে জয়পুরের বাসিন্দা বলে বর্ণনা করেছেন। তার প্রোফাইল ফেসবুকে প্রায় 1400 জন ফলো করে।

निष्कर्ष: উপসংহার: উত্তরপ্রদেশের বদাউন জেলার উঘাইটি থানা এলাকায় গরু চরানোর নামে তোলাবাজির ঘটনায় গোরক্ষা সংগ্রাম সমিতির জেলা সভাপতি সহ তিনজনের বিরুদ্ধে মোকাদ্দমার ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে রাজস্থানের বলে।

Know the truth! If you have any doubts about any information or a rumor, do let us know!

Knowing the truth is your right. If you feel any information is doubtful and it can impact the society or nation, send it to us by any of the sources mentioned below.

ট্যাগ

Post your suggestion
আরও পড়ুন

No more pages to load

সম্পর্কিত আর্টিকেলস

Next pageNext pageNext page

Post saved! You can read it later