X

Fact Check: কেন্দ্রীয় কর্মচারী, পেনশনপ্রাপকদের DA এবং DR সম্পর্কে মিথ্যা দাবি ভাইরাল হয়েছিল

  • By Vishvas News
  • Updated: July 7, 2021

বিশ্বাস নিউজ (নয়াদিল্লি)। সোশ্যাল মিডিয়া ইউজাররা একটি চিঠি শেয়ার  করছেন। এর সাথেই দাবি করা হচ্ছে যে করোনার কারণে ২০২১ সালের ১ জুলাই থেকে কেন্দ্রীয় কর্মচারী এবং পেনশনপ্রাপকদের আটকে থাকা ডিএ এবং ডিআর প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে অর্থ মন্ত্রক। দাবি অনুসারে, এই অর্থ প্রদান তিনটি ইনস্টলমেন্টে করা হবে। বিশ্বাস নিউজের তদন্তে এই দাবিটি মিথ্যা বলে প্রমাণিত হয়েছে। অর্থ মন্ত্রক ভাইরাল লেটারটিকে নকল বলে অভিহিত করেছে।

কেন ভাইরাল হচ্ছে

ফেসবুক ইউজার Sanjeet Singhania 26 শে জুন, 2021-এ এই ভাইরাল লেটারটি শেয়ার করে লিখেছেন, ‘ভারত সরকার কোভিড সঙ্কটের কারণে 2020 জানুয়ারি থেকে কেন্দ্রীয় কর্মীদের মহার্ঘ্য ভাতার ওপরে থাকা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে।’ এই পোস্টের আর্কাইভ ভার্সানটি এখানে ক্লিক করলে দেখা যাবে।

ফেসবুক ইউজার Umed Parashar একই ভাইরাল লেটার পোস্ট করেছেন। এই পোস্টের আর্কাইভ ভার্সানটি  এখানে ক্লিক করে দেখা যাবে।

একই দাবি টুইটারেও ভাইরাল হচ্ছে। Ram Rajput Jai Hind নামের একজন টুইটার ইউজার 27 শে জুন, 2021-এ একটি ভাইরাল লেটার টুইট করে লিখেছিলেন যে, কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক আটকে রাখা মহার্ঘ্য ভাতা জুলাই থেকে 3টি ইনস্টলমেন্টে দেওয়ার অনুমতি রয়েছে। এই টুইটের আর্কাইভ ভার্সানটি এখানে ক্লিক করে দেখা যাবে।

তদন্ত

বিশ্বাস নিউজ সবার আগে ভাইরাল ছবি এবং এইগুলো শেয়ার করা পোস্টগুলোকে ভালো করে দেখে। 26 শে জুন 2021-এ জারি করা হয়েছ বলে বলা এই লেটারটিতে লেখা হয়েছে যে, কোভিড -19 সংকটের কারণে কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের আটকানো ডিএ এবং পেনশনারদের ডিআর 1 জুলাই, 2021 থেকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিছু ইউজার টুইটার পোস্টে শেয়ার করা এই ভাইরাল চিঠির নীচে মন্তব্য করে এটিকে একটি জাল আদেশ বলেছেন।

বিশ্বাস নিউজ প্রয়োজনীয় কীওয়ার্ডগুলির সাহায্য নিয়ে ইন্টারনেটে এই ভাইরাল দাবিটি অনুসন্ধান করেছিল। আমরা 28 শে জুন, 2021 এ আমাদের অনুমোদিত দৈনিক জাগরণের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি রিপোর্ট পেয়েছি। এই রিপোর্টে বলা হয়েছে যে 2021 সালের জুলাই থেকে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের ডিএ পুনরায় প্রবর্তন এবং কেন্দ্রীয় সরকারের পেনশনভোগীদের মহার্ঘ্য ভাতা দেওয়ার দাবিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ম্যাসেজকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে মিথ্যা বলা হয়েছে। এই রিপোর্টটি এখানে ক্লিক করে বিশদভাবে পড়া যেতে পারে।

ইকনমিক টাইমসও 28 শে জুন 2021 পিটিআই এর তরফ থেকে একটি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। এই রিপোর্টেও অর্থ মন্ত্রালয়ের তরফে ডিএ এবং ডিআর এর প্রদানের কোন আদেশ প্রকাশিত হয় নি। এই প্রতিবেদনে এখানে ক্লিক করলে দেখা যাবে।

বিশ্বাস নিউজও এই ভাইরাল লেটারটি অর্থ মন্ত্রকের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে করা এক টুইটে পেয়েছে। অর্থ মন্ত্রক 26শে জুন, 2021 এ ভাইরাল লেটার টুইট করে বলে এমন কোন অফিস মেমোরেন্ডাম ভারত সরকারের জারি করে নি এবং ভাইরাল লেটারটি ফেক। এই টুইটটি এখনে নিচে ক্লিক করলে দেখা যেতে পারে।

আপনাদের বলে রাখি যে, গত বছর এপ্রিল মাসে করোনা মহামারীকে মাথায় রেখে ডিএ এর বৃদ্ধি 2021 সালের জুন অবধি ফ্রিজ করে দেওয়া হয়েছিল। বিশ্বাস নিউজ আমাদের সহযোগী, দৈনিক জাগরণের অনলাইন ডেপুটি এডিটর এবং বিজনেস ও পার্সোনাল বিশেষজ্ঞ মনীষ মিশ্রের সাথে এই ভাইরাল দাবিটি শেয়ার করেছে। তিনিও নিশ্চিত করেছেন যে ভাইরাল লেটারটি অর্থ মন্ত্রক অস্বীকার করেছে। তিনি বলেছিলেন যে করোনার কারণে গত বছর ডিএ বৃদ্ধি ফ্রিজ করা হয়েছিল, যে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

বিশ্বাস নিউজ ভাইরাল দাবি শেয়ার করা ফেসবুক ইউজার Sanjeet Singhania  এর প্রোফাইল স্ক্যান করেছে। ইউজার বিহারের সাহারসায় থাকেন এবং ফ্যাক্ট চেক করা পর্যন্ত এই প্রোফাইলটিতে 2359 জন ফলোয়ার রয়েছেন।

Know the truth! If you have any doubts about any information or a rumor, do let us know!

Knowing the truth is your right. If you feel any information is doubtful and it can impact the society or nation, send it to us by any of the sources mentioned below.

ট্যাগ

Post your suggestion
আরও পড়ুন

No more pages to load

সম্পর্কিত আর্টিকেলস

Next pageNext pageNext page

Post saved! You can read it later