X

Fact Check: ২০০৮ সালের গোয়ার ঘটনার ভিডিওটিকে বাংলা বলে ভাইরাল করা হচ্ছে

উপসংহার: আমাদের তদন্তে, এটি পরিস্কার হয় যে ভাইরাল পোস্টের সাথে করা দাবিটি মিথ্যা। আসলে এই ভিডিওটি গোয়ার, বাংলার নয়। ঘটনাটি ঘটেছিল 2008 সালে।

  • By Vishvas News
  • Updated: May 31, 2021

(বিশ্ব নিউজ)। একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে, যাতে গৈরিক পোশাক পরা কয়েকজন বিদেশিকে দেখা যাচ্ছে। ভিডিওতে  এই বিদেশী এবং পুলিশ সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষ দেখা যাচ্ছে। পোস্টটিতে দাবি করা হয়েছে যে এই বিদেশীরা যখন পশ্চিমবঙ্গে হিন্দু ধর্ম প্রচার করছিল  তখন তাদের বাধা দেওয়া হয়েছিল এবং তাদের সাথে মারামারি করা হয়েছিল। বিশ্বাস নিউজের তদন্তে পাওয়া গেছে যে ভাইরাল পোস্টটিতে যা  দাবি করা হয়েছে তা মিথ্যা। আসলে এই ভিডিওটি গোয়ার এবং বাংলার নয়। ঘটনাটি ঘটেছিল ২০০৮ সালে। 

ভাইরাল পোস্টটিতে কি আছে?

টুইটার ইউজার রিয়া আগরওয়াল (কিট্টু) এই পোস্টটি শেয়ার করেছেন, যেখানে লেখা ছিল – “পশ্চিমবঙ্গে বিদেশী হিন্দুরা একটি গাড়ীতে হিন্দু ধর্ম প্রচার করছিল,শ্রীমাদ ভাগবত গীতার কপি বিতরণ করছিল, হিন্দুবিরোধী আদর্শের সাথে সহমত মমতার ধর্মনিরপেক্ষ পুলিশ যখন এই খবরটি পায়, তখন ধর্মনিরপেক্ষ পুলিশ মমতার নজরে আসার জন্য প্রচার বন্ধ করতে যেতে হয়েছিল।”

পোস্টটির আর্কাইভ ভার্সানটি এখানে এবং এখানে দেখা যায়।

তদন্ত

আমরা প্রথমে ভিডিওটি ঠিকভাবে দেখি। ভিডিওটির এক জায়গায় পুলিশের গাড়িতে গোয়া পুলিশ লেখা থাকতে দেখা যায়।

বিশ্বাস নিউজ ভাইরাল পোস্টটি তদন্ত করতে প্রথমে এই ভিডিওর  InVID   টুলের সাহায্যে কীফ্রেমগুলি বের করেছে, তারপরে এই কিফ্রেমগুলোকে গুগল রিভার্স ইমেযে “গোয়া পুলিশ” কীওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করেছে। আমরা এই ভিডিওটি 28 শে আগস্ট 2013 এ রাশিয়ান ইউটিউব চ্যানেলে Девятое измерение নামে আপলোডেড পেয়েছি। ভিডিওটির সাথে লেখা ছিল, “অনুবাদিত: রাশিয়া থেকে হরে কৃষ্ণ, আমরা কৃষ্ণবাদের মাতৃভূমি ভারতে গিয়ে সেখানে পারফর্ম করেছিলাম। আমাদের সেখানে লড়াই হয়েছিল। রাশিয়ানরা রাশিয়ানই থাকবে।”

আমরা এই ভাইরাল ভিডিওটি “Discover Goa” নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলে এপ্রিল 2018 এ আপলোড করা পেয়েছি। ভিডিওটির সাথে দেওয়া ডেস্ক্রিপশন অনুসারে, “রাশিয়ান পর্যটকরা ম্যাপুসার গোয়া পুলিশে আক্রমণ করেছিল”

ইন্টারনেটে কীওয়ার্ডগুলির সাহায্যে এটি অনুসন্ধান করা। আমরা goanvoice.org.uk এর নিউজ লেটারে ঘটনার ছবি সহ একটি খবর পাই। 2008 এর এই নিউজ লেটার অনুসারে ঘটনাটি 26 শে নভেম্বর 2008 তারিখের। এতে লেখাছিল, “অনুবাদিত: ম্যাপুসা পুলিশ স্টেশনের কাছে একদল রাশিয়ান হরে রমা হরে কৃষ্ণ ভজন গাইছিলেন, সদস্যের ধর্মীয় মন্ত্র আবৃত্তি মঙ্গলবার একটি হিংস্র রূপ নিয়েছিল, যখন এই রাশিয়ানরা পুলিশের সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষে দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছিলেন। “

এই ঘটনার একটি সংবাদ প্রতিবেদন 28 শে নভেম্বর 2008-এ heraldgoa.in এ প্রকাশিত হয়েছিল। তবে এই সংবাদটি পুরোপুরি জানা যায় নি। তবে হেডলাইন, ডেস্ক্রিপশন এবং এর পাবলিশ হওয়ার তারিখ থেকেই বোঝা যাচ্ছে যে এই সংবাদটি গোয়ার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই।

এই বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য আমরা গোয়ার মাপুসা পুলিশ স্টেশনের স্টেশন ইনচার্জ তুষার লটলিকরের সাথে যোগাযোগ করেছি। তিনি আমাদের বলেছিলেন, “ঘটনাটি 2008 সালে ম্যাপুসাতে হয়েছিল। এতে 8 জন রাশিয়ানকে পুলিশের সাথে দুর্ব্যবহার এবং ট্র্যাফিকে বাধা দেওয়ার জন্য গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। সম্প্রতি এরকম কোনও ঘটনা প্রকাশ্যে আসে নি। “

এখন সময় হল টুইটারে এই পোস্টটি শেয়ার করা ইউজার রিয়া আগরওয়াল (কিট্টু)@kittu_thought   এর প্রোফাইল স্ক্যান করার। প্রোফাইলটি স্ক্যান করে আমরা জানতে পারি যে টুইটার ইউজারের 1,417 জন ফলোয়ার রয়েছে।

निष्कर्ष: উপসংহার: আমাদের তদন্তে, এটি পরিস্কার হয় যে ভাইরাল পোস্টের সাথে করা দাবিটি মিথ্যা। আসলে এই ভিডিওটি গোয়ার, বাংলার নয়। ঘটনাটি ঘটেছিল 2008 সালে।

Know the truth! If you have any doubts about any information or a rumor, do let us know!

Knowing the truth is your right. If you feel any information is doubtful and it can impact the society or nation, send it to us by any of the sources mentioned below.

ট্যাগ

Post your suggestion
আরও পড়ুন

No more pages to load

সম্পর্কিত আর্টিকেলস

Next pageNext pageNext page

Post saved! You can read it later